Skip to main content
 

মেহেরপুরে গৃহবধূকে হত্যায় স্বামী-সতিনের মৃত্যুদণ্ড

মেহেরপুরে গৃহবধূ জরিনা খাতুনকে হত্যার দায়ে তাঁর স্বামী ও সতিনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। আজ সোমবার বেলা ১১টার দিকে মেহেরপুরের অতিরিক্ত জেলা জজ রিপতি কুমার বিশ্বাস এই রায় ঘোষণা করেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন সদর উপজেলার যাদবপুর গ্রামের নবীছদ্দীনের ছেলে সাইদুল ইসলাম ও তাঁর প্রথম স্ত্রী জমেলা খাতুন। রায় ঘোষণার সময় আসামিরা পলাতক ছিলেন। নিহত জরিনা মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি সাইদুলের দ্বিতীয় স্ত্রী ছিলেন।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ২০১০ সালে সদর উপজেলার যাদবপুর গ্রামের সাইদুল ইসলাম ও তাঁর প্রথম স্ত্রী জমেলা খাতুন মিলে জরিনা খাতুনকে হত্যার পর আলুখেতে পুঁতে রাখেন। কয়েক দিন পর পুলিশ তাঁর লাশ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় পাঁচজনকে আসামি করে মেহেরপুর থানায় মামলা হয়। সাইদুল ও তাঁর প্রথম স্ত্রী হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দেন। এই দুজনের নামে অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ। বাকি তিনজনকে অব্যাহতি দেওয়া হয়। পরে জামিনে গিয়ে এই দম্পতি পালিয়ে যান।

.